1. admin@dailygomutipratidin.com : admin :
বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৮:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
চট্টগ্রামে ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামী জালালউদ্দিন (৩২)কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭ পিরোজপুরের মাদক সহ এক মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব ৮ সাম্প্রদায়িকতাকে দূরে ঠেলে দিয়ে একসাথে কাজ করতে হবে – ব্যারিস্টার এস এম কফিল উদ্দিন প্রধানমন্ত্রী এই দেশকে ধর্মনিরপেক্ষ হিসাবে রক্ষা ও প্রতিষ্ঠিত করে যাবেন বললেন : আইনমন্ত্রী কসবা উপজেলা যুবদল সদস্য সচিবের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ। বুড়িচংয়ে সিটি ব্যাংকের এজেন্ট মোহন মিয়ার বিরুদ্ধে গ্রাহকের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র, মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটির তীব্র প্রতিবাদ। বঙ্গবন্ধু এই দেশ স্বাধীন করেছেন অসাম্প্রদায়িক চেতনার ভিত্তিতে–হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর কুমিল্লায় মাদক ও ভেজাল খাদ্য পরিবেশনের নির্মুলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল রানা সরকারি প্রশাসনের গর্ব চট্টগ্রামে মাদক ব্যবসায় নিয়োজিত করার জন্য অপহরণ: অপহৃত ভিকটিম উদ্ধার করেছে র‌্যাব-৭।

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচনী প্রচারনা শুরু।

  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৮ মে, ২০২২
  • ১৩ বার পঠিত

কুমিল্লা জেলা প্রতিনিধি :

শুক্রবার পছন্দের প্রতীক ‘টেবিল ঘড়ি’ পেলেও শনিবার সকাল থেকে প্রচারে বের হন এই স্বতন্ত্র প্রার্থী। বেলা সাড়ে ১১টায় তিনি নগরীর ১২ নম্বর ওয়ার্ডের নানুয়া দিঘীরপাড়ে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের কাছে এ অভিযোগ করেন।

দুইবারের মেয়র বলেন, “শুক্রবার গভীর রাতে নগরীর চকবাজার, কাপড়িয়াপট্টি, দেশওয়ালীপট্টি, রাজগঞ্জ ও কান্দিরপাড় এলাকায় আমার নির্বাচনী পোস্টার ছিঁড়ে ফেলেছে মুখোশধারী কয়েকজন। এ ছাড়া রাতে প্রচার শেষে ফেরার পথে আমার প্রচার মাইক ভাঙচুর করা হয়েছে নগরীর টিক্কারচর এলাকায়।”

“বিষয়টি রিটার্নিং কর্মকর্তাকে জানিয়েছি। রিটার্নিং কর্মকর্তা আমাকে লিখিত অভিযোগ দিতে বলেছেন। আমি লিখিত অভিযোগ দিব।”

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শাহেদুন্নাবী চৌধুরী দুপুরে বলেন, এখনও লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের আরফানুল হক রিফাত ‘নৌকা’, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের রাশেদুল ইসলামকে ‘হাতপাখা’, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন কায়সার ‘ঘোড়া’ এবং কুমিল্লা নাগরিক ফোরামের সভাপতি কামরুল আহসান বাবুল ‘হরিণ’ প্রতীকে মেয়র পদে লড়ছেন।

প্রার্থীরা টানা ১৩ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত নির্বাচন কমিশনের শর্ত মেনে প্রচার চালাতে পারবেন। ১৪ জুন অর্থাৎ নির্বাচনের আগের দিন প্রচার চালানো যাবে না। ১৫ জুন সকাল থেকে ১০৫টি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে ভোট দেবেন নগরবাসী।

সাক্কু সকালে নগরীর কাপড়িয়াপট্টি, দেশওয়ালীপট্টি ও কান্দিরপাড় এলাকায় গণসংযোগ করেন। এ সময় উন্নয়ন অব্যাহত রাখার জন্য আবারও তাকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান।

স্বতন্ত্র এ প্রার্থী বলেন, “১০ বছর মেয়রের চেয়ারে ছিলাম। এরপরও মানুষের ভালোবাসা আমার জন্য কমেনি। কারণ, আমি মানুষের পাশে থেকে তাদের সেবা করেছি। আশা করছি, নগরীর মানুষ এবারও আমাকে হতাশ করবেন না।”

কুমিল্লা সিটিতে সর্বশেষ ভোট হয়েছিল ২০১৭ সালের ৩০ মার্চ। নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি দায়িত্ব নেওয়ার পর সে বছরের ১৭ মে প্রথম সভা হয়। তাদের পাঁচ বছর মেয়াদ পূর্ণ হয়েছে চলতি বছরের ১৬ মে।

সিটি করপোরেশনে মেয়াদপূর্তির আগের ১৮০ দিনের মধ্যে নির্বাচন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তবে এবার তা সম্ভব হচ্ছে না বলে জানিয়ে দেয় গত ফেব্রুয়ারিতে দায়িত্ব নেওয়া কাজী হাবিবুল আউয়ালের নেতৃত্বাধীন নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

দুটি পৌরসভা নিয়ে ২০১১ সালের জুলাই মাসে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন গঠিত হওয়ার পর এ পর্যন্ত দুটি নির্বাচন হয়েছে। ১০ বছর আগে প্রথম নির্বাচন নির্দলীয় প্রতীকে হলেও ২০১৭ সালে দলীয় প্রতীকে মেয়র নির্বাচন হয়। দুই নির্বাচনেই ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীকে পরাজিত করে জয়ী হয় বিএনপিনেতা সাক্কু।

এবারের নির্বাচনে সাক্কু ছাড়াও ‘বিএনপিনেতা’ নিজাম উদ্দিন কায়সার মাঠে রয়েছেন। সাক্কু কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও নিজাম উদ্দিন কায়সার মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি ছিলেন।

১৯ মে মনোনয়নপত্র বৈধ হওয়ার পর স্বতন্ত্রভাবে ভোটে লড়তে একদিকে যেমন দুই নেতাই পদত্যাগের ঘোষণা দেন; ঠিক তেমনি দল থেকে তাদের চিরতরে বহিষ্কারের ঘোষণাও আসে।

২০১২ সালে কুমিল্লার প্রথম সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে লড়েছিলেন প্রভাবশালী নেতা আফজল খান নিজে। সেবার তিনি বিএনপি নেতা মনিরুল হক সাক্কুর কাছে হেরে যান। সাক্কু ৬৫ হাজার ৫৭৭ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেন। আফজল খান পান ৩৬ হাজার ৪৭১ ভোট।

এরপর ২০১৭ সালে মেয়র পদে প্রার্থী হন আফজল খানের মেয়ে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আঞ্জুম সুলতানা সীমা। সে নির্বাচনেও সাক্কু ধানের শীষ প্রতীকে ৬৮ হাজার ৯৪৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। নৌকা প্রতীক নিয়ে সীমা পান ৫৭ হাজার ৮৬৩ ভোট।

এবার আফজল পরিবারকে বাদ দিয়ে সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারের অনুগত হিসেবে পরিচিত রিফাতকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী করলে বেঁকে বসেন কুমিল্লার ব্যবসায়ী নেতা মাসুদ পারভেজ খান ইমরান। মনোনয়নপত্র জমার শেষ দিনে তিনি মনোনয়নপত্র জমা দিলে ভোটের সমীকরণ জটিল হয়ে পড়ে। পরে অবশ্য কেন্দ্রী নেতাদের সঙ্গে সমঝোতার মাধ্যমে তিনি লড়াইয়ের ময়দান থেকে সরে দাঁড়ান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Daily Gomuti Pratidin
Theme Customized By Theme Park BD
error: Content is protected !!