1. admin@dailygomutipratidin.com : admin :
শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১১:৪১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুমিল্লায় মাদকসহ মাদক কারবারি গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাবের ১১ রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে পুনরায় নির্বাচিত হলে জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোস্তাফিজুররহমান মোস্তফা মেট্রোপলিটন পুলিশের মাসিক অপরাধ সভা সদর দপ্তরের কনফারেন্স হলে অনুষ্ঠিত কুমিল্লায় স্বামীর নির্যাতনে স্ত্রী হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্দন পীর যাত্রাপুর উত্তর পশ্চিমপাড়া মরহুম দুধু মিয়া জামে মসজিদ মাঠ প্রাঙ্গনে ওয়াজ ও দোয়ার মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে কক্সবাজারের অনলাইনে লুডু খেলাকে কেন্দ্র করে হত্যা মামলার আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭ কুমিল্লার জেলা বুড়িচং উপজেলার ফকির বাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের  শিক্ষকের বিদায় সংবর্ধনা  শুক্রবার চট্টগ্রামে অধ্যাপক নূরুল ইসলাম হেলালী স্মারক বক্তৃতা বায়েজিদে নিষিদ্ধ অটোরিক্সা থেকে টোকেন বাণিজ্য চাঁদাবাজি করে লক্ষ লক্ষ টাকা কামিয়ে নিচ্ছে সামসু। চট্টগ্রামে বিপুল পরিমাণ মাদক ও গাড়ি সহ মাদককারবারী আটক করেছে র‌্যাব-৭,

নির্বাচনে সেনা মোতায়েন না করার পরামর্শ দিয়েছেন সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশন।

  • আপডেট সময় : রবিবার, ১২ জুন, ২০২২
  • ৩৪ বার পঠিত

 

গোমতী প্রতিদিন ডেক্স :

নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন না করার পরামর্শ দিয়েছেন সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা। তিনি বলেন, ‘সেনাবাহিনী নির্বাচনে কোনও কাজে আসে না।’

রবিবার (১২ জুন) আগারগাঁও নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে এক মতবিনিময় সভায় এই পরামর্শ দেন তিনি। সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার, নির্বাচন কমিশনার ও সচিবদের সঙ্গে এই মতবিনিময় আয়োজন করে নির্বাচন কমিশন।

নুরুল হুদা বলেন, ‘বাংলাদেশের নির্বাচনে যে পরিমাণ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মোতায়েন হয় এটা বিশ্বে বিরল। মনে হয়, পৃথিবীতে কোথাও নাই। শত-শত, হাজার-হাজার লোক বন্দুক হাতে যুদ্ধাবস্থার মতো দাঁড়িয়ে থাকে। আমি দায়িত্বে থাকতেও বলেছি, এখনও বলেছি যে এসবের প্রয়োজন নাই।’

সেনাবাহিনী মোতায়েন ‘একেবারেই দরকার নেই’ দাবি করে তিনি বলেন, ‘কারণ বিগত নির্বাচনে তাদের এক্টিভিটিস আমরা দেখেছি। নির্বাচন পরিচালনার কোনও কাজে তারা আসে বলে আমার মনে হয় না। সুতরাং আমাদের এই এলিট ফোর্স সেনাবাহিনীকে নির্বাচনের সময় মাঠে নামানোর কোনও দরকার নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘৭৫ শতাংশ অর্থ ব্যয় হয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাজে। আমার যখন স্কুলে ছিলাম তখন দেখতাম একজন চৌকিদার বাঁশি মুখে আর হাতে লাঠি নিয়ে একটা কেন্দ্র নিয়ন্ত্রণ করতো। এখন আর্মি, বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ নামে। একটা কেন্দ্রে যে পরিমাণ সশস্ত্র সদস্য থাকে তা একটা থানার সমান। এখন তো আমাদের সেই পরিস্থিতি নেই যে, বাক্স আছে লোকজন ব্যালটে ভোট দিবে। এখন আছে ইভিএম। ইভিএম এমন একটা বিষয় যেখানে বাক্স ছিনতাই করা যায় না। একজনের ভোট আরেকজন দিতে পারে না। নির্বাচন শুরু হওয়ার আগে ইভিএম চালু করা যায় না। এর যথেষ্ট সুবিধা আছে।’

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়ালের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন সাবেক অতিরিক্ত সচিব মোখলেছুর রহমান, সাবেক অতিরিক্ত সচিব বেগম জেসমিন টুলী, সাবেক সচিব মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ , সাবেক সচিব ড. মোহাম্মদ সাদিক, সাবেক সিইসি কে এম নুরুল হুদা, সাবেক সিইসি শামসুল হুদা, সাবেক সিইসি বিচারপতি আব্দুর রউফ,সাবেক নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ শাহনেওয়াজ, সাবেক নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার এবং সাবেক নির্বাচন কমিশনার মো আবু হাফিজ প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর